বুধবার, ১৭ Jul ২০২৪, ০৩:২৫ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি....
“সরকারের দিক-নির্দেশনা মেনে চলি, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করি।” অনলাইন নিউজ পোর্টাল “আজকের দিগন্ত ডট কম” এর পক্ষ থেকে আপনাকে জানাচ্ছি স্বাগতম , সর্বশেষ সংবাদ জানতে এখনই ভিজিট করুন “আজকের দিগন্ত ডট কম” (www.ajkerdiganta.com) । বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের জন্য পরিশ্রমী, মেধাবী এবং সাহসী প্রতিনিধি আবশ্যক, নিউজ ও সিভি পাঠানোর ঠিকানাঃ-- ajkerdiganta@gmail.com // “ধুমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর, আসুন আমরা মাদক’কে না বলি”
সংবাদ শিরোনাম....
বীরগঞ্জে ৩ ক্লিনিকের জরিমানা ও ১ ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা খুলনা জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত জোবিঅ-সাভার এর আওতাধীন জিরাবো ও আশুলিয়ায় তিতাসের বিশেষ অভিযান জরিমানাসহ কাশিমপুরে বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন বৈশ্বিক জলবায়ুর প্রভাব থেকে বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের মানুষকে বাঁচাতে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি-২০২৪ মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে কাশিমপুরে বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন বীরগঞ্জে অন্তর্ভূক্তিকরণ সভা অনুষ্ঠিত কাশিমপুরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন আশুলিয়ায় প্রায় দশ কোটি টাকা মূল্যের সরকারি জমি উদ্ধার এবং অবৈধ স্থাপনা সরানোর নির্দেশ আশুলিয়ার বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ

প্রতিটি পায়ে পায়ে বয়ে চলছি একটি জাতির মৃত্যুর প্রতিধ্বনি

প্রতিটি পায়ে পায়ে বয়ে চলছি একটি জাতির মৃত্যুর প্রতিধ্বনি

 

মোঃ সাইফুল ইসলাম মাসুমঃ– করোনায় চীন থেকে শুরু করে দেশে দেশে ঘুরতে এ ভাইরাসটি যখন আমাদের দেশেও হানা দেয়, তখন থেকেই চলছে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা, সারা দেশ জুড়ে সচেতনা জোরদার, রাষ্ট্রীয় ভাবে সারাদেশে অঘোষিত লকডাউন করা হয়েছে । আইন শৃংখলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে, মানুষের গমনা গমন ও অযাচিত আড্ডা, গণসমাবেশ ও গণজমায়েত রোধকল্পে জায়গায় জায়গায় বাড়ানো হয়েছে আইন শৃংখলা বাহিনীর টহল কঠোর নিয়ন্ত্রনের মাঝেও রয়েছে আমাদের আইন না মানার প্রবণতা ।ধর্মীয় উপাসনালয়গুলো যেমন – মসজিদ, মন্দির বন্ধ করা হয়েছে । সীমিত করা হয়েছে সেখানকার গণজমায়েত । শুধু বাংলাদেশেই নয় । স্বয়ং সৌদি আরবেও মক্কা ও মদীনা শরীফও লোক সমাগমের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষনা করা হয়েছে । কারফিউ জারি করা হয়েছে সেখানকার শহরগুলোতেও । শুধুমাত্র জনসমাগম এড়াতে এই উদ্যোগ । আমাদের দেশেও সরকার আজ উদ্যোগ নিয়েও আজও আমরা করোনা মোকাবেলায় অক্ষম । দিনের পর দিন বাড়ছে করোনা আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা ।গ্রাফটা শুধুই উর্ধগামী । এর কারণ আমরাই । এই আমরা সাধারন মানুষরাই করোনা ভাইরাসটিকে মানুষের রন্ধ্রে রন্ধ্রে পৌছে দিচ্ছি । কেউ মানছেনা কোন নিয়ম । কেউ মানছেনা লকডাউন । কারনে -আকারনে মানুষ সামাজিক দুরত্ব ভাঙ্গছে ও ঘর থেকে বের হচ্ছে ।

আরও পড়ুনঃ ব্রাক্ষণবাড়িয়াকে নিয়ে উপহাস করার তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করছি

কোয়ারেন্টাইন, সামাজিক দুরত্ব-কিসের কি? কোথাও পুলিশের টহল দেখলে মানুষজন দৌড়ে পালায়, আবার পুলিশ চলে গেলে দোকানপাট সব খুলে দিচ্ছে, পুনরায় আড্ডায় বসে যাচ্ছে । আশ্চর্য হই এই চরম দুর্দিনে মানুষজনের অজ্ঞতা দেখে । কীভাবে পারে মানুষ এই দুঃসময়ে বিয়ের আয়োজন করতে, কুলখানি কিংবা অন্যান্য প্রোগ্রামের আয়োজন করতে । আমাদের দেশের মানুষকে শৃংখলা মেনে চলতে ও লকডাউন বাস্তবায়ন করাতে, ”ঘরে থাকুন” কে বাস্তবায়ন করতে সরকার সারা দেশে পুলিশের পাশাপশি সেনাবাহিনীও মোতায়েন করেছে । কিন্তু কে রাখে কার কথা ? বিপাক পড়েছে পুলিশ ও প্রশাসন । একদিকে গণমৃত্যুর অশুভ ফণা অন্যদিকের রাষ্ট্রের নাগরিকের আইন না মানা, তুমুল হেয়ালী পনা ।একদিকে যমদূতের তেড়ে আসা, অন্যদিকে মানুষের তেড়ে আসা । কে বুঝাবে এই অবুঝ অসচেতন নৃ-গোষ্ঠীকে ? এরই মাঝে দেখতে হয় রাষ্ট্র ও আইন বিরোধী কথাবার্তা বলা মানুষের আস্ফালন, কতিপয় লিটললার্নার এর অবৈজ্ঞানিক মুন্সিয়ানাও । প্রতিদিন কত মানুষ কত ডকট্রিন এর জন্ম দিচ্ছে । রাষ্ট্রের এই কড়া নিষেধাজ্ঞা ও কঠোর হস্তে নিয়ন্ত্রনের ঘটনাগুলো যে আমাদের জন্যই একথা আমাদের কে বুঝাবে? দিনরাত সরকারী বেসরকারী উদ্যোগে, প্রাতিষ্ঠানিক কিংবা ব্যাক্তি উদ্যোগে শুধুমাত্র গণসচেতনা বাড়তে দেশীয় বা বিদেশী সরকারী ও বেসরকারী গণমাধ্যম গুলো, বিভিন্ন টিভি চ্যানেল, খবরের কাগজ , অনলাইন নিউজ পোর্টালসহ সকল গণমাধ্যম। আমরা জানি কিন্তু মানিনা । এই লকডাউন জনিত কারনে ছিন্নমূল অসহায় মানুষ, দিনমজুর, গৃহকর্মী যাদের প্রাত্যাহিক জীবনের কাজ বন্ধ হয়ে গেছে তাদের জন্যও এগিয়ে এসেছে দেশের বিত্তবান মানুষেরা, জনপ্রতিনিধিরা, জনপ্রশাসনের লোকজনও । সরকারও দিচ্ছে অজস্র ত্রাণসামগ্রী । যদিও এরই মাঝে চালচুরি ও ত্রাণ নিয়ে দূর্নীতি, লুটপাটের প্রমানিত অভিয়োগও রয়েছে । এটাও তো আমাদেরই চরিত্র । এই আমরাইতো এসব করি । দুঃখী মানুষের রিযিক আত্নসাতে আমাদের এই সুখানুভুতি নতুন কিছু নয় । এটাও আমাদের Character এর Legacy.

রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে অঘোষিত লকডাউন বিদ্যমান থাকলেও মানছেনা অনেকেই । মূল সড়কগুলোতে পুলিশের টহল বেশি থাকায় মূল সড়কের চিত্র ফাঁকা দেখালেও, আমাদের শহরে, পৌরসভায়, গ্রামে, গঞ্জে, পাড়া, মহল্লায়, অলিতে গলিতে মানুষের ভীড় দেখলে মনে হয়না দেশে করোনা বলে কিছু আছে । সারা দেশে গণপরিবহন বন্ধ থাকায়ও আন্ত জেলা যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকায় জনযোগাযোগ খুব একটা পরিলক্ষিত না হলেও ছোট ছোট ফাঁড়ি রাস্তাগুলোতে ঠিকই সিএনজি অটোরিক্সা চলছে অবাধে এবং জনসংযোগও হচ্ছে ব্যাপক ভাবে । এত বড় মরণ ফাঁদ মহামারী করোনা ভয়ে ভুগছে মানুষ, বলা যায় যে, এখন শুধু বাংলাদেশ নয়, সারা পৃথিবিী জুড়ে চলছে লকডাউন । ইউরোপ, আমেরিকার সব বড় বড় শহরগুলো এখন থমথমে। বিরাণ ভুমিতে পরিনত হয়েছে জনাকীর্ণ জনপদগুলি ।নিউইয়র্কেও টাইম স্কয়ার এখন জনশূন্য । নিউইয়র্কে বাতাসে আজ লাশের গন্ধ । নিউইয়র্কের জ্যাকশন হাইটস এখন মৃত্যুপূরী । যে নগরী কখনো ঘুমায় না, নগরীর গতিপথ কখনো থামেনা, স্টপলেস সিটি বলে যে নগরী গুলোকে, সেগুলোই্ আজ লকডাউনে স্টপ হয়ে আছে । ইতালীর পর্যটন নগরী ভেনিস আজ জন মানবহীন শূন্য উদ্যানে পরিনত হয়েছে । সারাবিশ্বের উন্নত ও ব্যস্ততম নগরীগুলো যদি লকডাউন মানতে পারে তবে আমরা কেন পারবনা ? কিন্তু আমরা পারছিনা, আমাদের আছে কি সে বিশ্বাস, সে প্রত্যয়, সে দেশপ্রেম, সে অঙ্গীকার? রোম, লন্ডন,প্যারিস, আমস্টারডাম, বন, ইস্তাম্বুল, স্টকহোম, হেলসিংকি, হেগ, ফ্লোরিডা, ওকলাহামা, ওয়াশিংটনডিসি, ম্যানিলা, মেলবোর্ন, সিডনী, দিল্লী, জাকার্তা লোম্বারডি, ভেনেতো, ভেনিস শহরগুলো আজ নিঃস্তব্ধ । তবু হুশ হয়না আমাদের বাংলাদেশীদের । আমরা যে কবে সতর্ক হব, আমার বোধে আসেনা । এ পর্যন্ত বিশ্বের প্রায় ৩৫ টিরও অনেক বেশি দেশে লকডাউন হয়েছে । বন্ধ করা হয়েছে সীমান্তে চলাচল। প্রায় ১০০ কোটিরও বেশি মানুষ রয়েছে হোম কোয়ারেনটাইনে । মানুষকে ঘরে রাখাই যেন এক বিরাট চ্যালেঞ্জ ।করোনা সংক্রমণ রোধে দেশে অঘোষিত লকডাউন চললেও সাধারণ মানুষ কোনভাবেই কথা শুনছেনা, মানছেনা রাষ্ট্রের কোন আইন । কোন নিয়ম নীতি, আইন কানুনের তোয়াক্কাই করছেনা ।

পুলিশ ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে নানারকম চেষ্টা করা হলেও কারনে অকারনে মানুষ ছুটছে ।মানুষের কিসের নেশা বোঝা বড় দায় । মৃত্যুতেই যেন ভয় নেই বাংলাদেশের মানুষ । শুধু হুশ আসে যখন নিজের কেউ মারা যায় । তার আগে মানুষ আজো বেপরোয়া ছুটছে । পুলিশের সাথে চোরপুলিশ খেলছে মানুষ । কিন্তু এ চোরপুলিশ খেলা যে খেলছেন নিজের জীবনের সাথে, তা কবে বোধগম্য হবে আপনার ? এখনো দেশের বাজারগুলোতে গেলে দেখা যায় উপচে পড়া মানুষের ভীড় । অনেকেই বলছে জরুরী প্রয়োজনে বের হচ্ছি । মানলাম বাজার করা জরুরী প্রয়োজন । কিন্তু প্রতিদিনই এই ভীড় হচ্ছে । একটা পরিবার থেকে একটা মানুষও যদি প্রতি এক সপ্তাহে একদিন বের হয় আর এভাবেই যদি রোস্টার ভিত্তিকও বের হয় মানুষ, তবে সারা দেশে প্রতিদিন কত কোটি বা কত লক্ষ মানুষের সমাগম হয়, হচ্ছে, হবে প্রতিদিন । তাহলে সামাজিক দুরত্ব আর রইল কোথায় ? আর মানুষের Whims বা হেয়ালীপনা দেখলে বড্ড দুঃখ লাগে । অনিচ্ছাকৃত হোক আর ইচ্ছাকৃত হোক, প্রয়োজনে হোক আর অপ্রয়োজনে হোক-এ কথা অনস্বীকার্য যে, মানুষ এখন জরুরী তা বুঝেনা । চাল, ডাল, তেল, পিঁয়াজ, রসুন, আটা, ময়দা, ওষুধ না হয়ে কতিপয় বিলাস দ্রব্য যেমন সোপ, নুডুলস, সেমাই , গাঁজর, ফ্রেঞ্চ ফ্রাই এর স্টিক, বডি স্প্রে , আঁতর, আরএফএল এর প্লাষ্টিক সামগ্রী, বারো রকমের মাছ, সিগারেট, চিকেন নাগেটস, কফি, সস কে যদি জরুরী প্রয়োজন বুঝায়, মৃত্যুভয়কে পরোয়ানা করে যদি এইগুলো মানুষের কাছেই ইমার্জেন্সি কমোডিটি হয়, তাহলে এ জাতিকে আর বুঝাবে কে ? এখনো লুকোচুরি করে চায়ের দোকানে আড্ডা দিতে দেখা যায় ।এই সব বিলাস দ্রব্য আর খাম খেয়ালীপনা কে প্রাইওরিটি দিতে গিয়ে নিয়ত মানুষ মৃত্যু ঝুঁকিকে উপেক্ষা করেই অবলীলায় জমছে বাজারে । একদিকে বাঁচামরা অন্যদিকে বেহুদা আড্ডা মারা আর মানুষের থেকে মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দেয়া একটা রোগের জীবাণু । প্রাইরিটি আমরা দ্বিতীয়টাকেই দিচ্ছি ।আমাদের বোধ কবে হবে? আমরা পায়ে পায়ে বয়ে চলছি একটি জাতির মৃত্যুর প্রতিধ্বনি । আমাদের প্রতিটা পায়ে পায়ে বাজছে বাংগালী জাতির মৃত্যুর প্রতিধ্বনি ।এখনো যদি আমাদের বোধ না জাগে, তবে আমাদের জন্যও অপেক্ষা করছে ইতালীর মত মৃত্যুপূরী, আর নিউইয়র্কের মতো গণকবর আর সারি সারি লাশবাহী ট্রাকের মিছিল ।

লেখকঃ
ব্যাংকার ও কলামিষ্ট

Print Friendly, PDF & Email

খবরটি শেয়ার করুন....



Leave a Reply

Your email address will not be published.



বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন

করোনা ইনফো (কোভিড-১৯)

 

 

 

 

পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫৭ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০৮ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ১৮:৫৩ অপরাহ্ণ
  • ২০:১৭ অপরাহ্ণ
  • ৫:১৯ পূর্বাহ্ণ

জনপ্রিয় পুরাতন হিন্দি গান

জনপ্রিয় বাউল গান

[print_masonry_gallery_plus_lightbox]




জনপ্রিয় পুরাতন বাংলা গান

সর্বশেষ সংবাদ জানতে



আমরা জনতার সাথে......“আজকের দিগন্ত ডট কম”

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত “আজকের দিগন্ত ডট কম”।  অনলাইন নিউজ পোর্টালটি  বাংলাদেশ তথ্য মন্ত্রনালয়ে জাতীয় নিবন্ধন প্রক্রিয়াধীন।

Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Shares
x