সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৮:৪৫ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি....
“সরকারের দিক-নির্দেশনা মেনে চলি, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করি।” অনলাইন নিউজ পোর্টাল “আজকের দিগন্ত ডট কম” এর পক্ষ থেকে আপনাকে জানাচ্ছি স্বাগতম , সর্বশেষ সংবাদ জানতে এখনই ভিজিট করুন “আজকের দিগন্ত ডট কম” (www.ajkerdiganta.com) । বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের জন্য পরিশ্রমী, মেধাবী এবং সাহসী প্রতিনিধি আবশ্যক, নিউজ ও সিভি পাঠানোর ঠিকানাঃ-- ajkerdiganta@gmail.com // “ধুমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর, আসুন আমরা মাদক’কে না বলি”
সংবাদ শিরোনাম....
রাঙ্গুনিয়া পৌরসভায় এ্যাডভোকেট নুরুচ্ছফা তালুকদার পৌর অডিটোরিয়ামের উদ্বোধন নলডাঙ্গার আওয়ামীলীগের প্রবীন নেতা আহম্মদ আলীর মৃত্যুতে শিমুল এমপির শোক রাজাপুরে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত বন্দর সংযোগ সড়কের উন্নয়ন কাজ শুরু শ্রীপুরে ৪২ তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ অনুষ্ঠিত সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে বীরগঞ্জে মানব বন্ধন নলডাঙ্গার হালতি বিলে অবৈধ বানাজালের বেড়া অপসারণ শুরু করলেন ইউএনও গোদাগাড়ীতে বাটিক ও হ্যান্ড এমব্রয়ডারি প্রশিক্ষণ সমাপ্ত তিলোত্তমা নগরী গড়তে হলে মানসিকতায় পরিবর্তন আনতে হবে– মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক পীরগঞ্জে কৃষকলীগের আনন্দ র‌্যালী

নাটোরে কাঁচা মরিচের দামের ঝালে নাকাল ক্রেতা-ভোক্তা

নাটোরে কাঁচা মরিচের দামের ঝালে নাকাল ক্রেতা-ভোক্তা

 

 

 

নাটোর থেকে মেহেদী হাসান তানিমঃ কাঁচা মরিচের ঝাল আগের চেয়ে না বাড়লেও বেড়েছে এর দাম। যা অনেকটা আকাশ চুম্বি।৪০ টাকা কেজির কাঁচা মরিচের দাম ছাড়িয়েছে ২শ’টাকা।ক্রেতা-ভোক্তাদের নাভিশ্বাস উঠলেও বেশ খুশি কৃষকরা। কৃষকের পক্ষেই অবস্থান নিয়ে কৃষি বিভাগ বলছে এ সময়টাতে মরিচের দাম বৃদ্ধি হয়। দাম বাড়ার কারনে লাভবান হয় কৃষক। বাড়ে তাদের আগ্রহ।

নাটোর জেলায় এ বছর ২৭৫ হেক্টর জমিতে চাষ হয়েছে মরিচের। যা থেকে প্রায় ১০ হাজার কেজি মরিচ উৎপাদনের আশা কৃষি বিভাগের। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি আবাদ হয় সদর, লালপুর ও বাগাতিপাড়া উপজেলায়।কিন্ত অতি বর্ষণ আর দীর্ঘস্থায়ী বন্যায় পুরোপুরি নষ্ট হয়ে গেছে অসংখ্যা মরিচ ক্ষেত। আর মরা গাছ গুলো যেন কৃষকের দীর্ঘশ্বাস হয়ে দাঁড়িয়ে আছে জমিতে। জমি থেকে সেই গাছ তুলে ফেলারও আগ্রহ নেই কৃষকের।

ভিন্ন চিত্র সেইসব কৃষকের যাদের জমিতে তরতাজা গাছ আর গাছ গুলো মরিচে ঠাসা। ৪০ টাকা কেজির মরিচ এখন তারা বিক্রি করতে পারছেন ১২০ থেকে দেড়শ’ টাকায়। প্রতি সপ্তাহে এক বিঘা জমি থেকে প্রায় ৩০ থেকে ৪০ কেজি মরিচ আহরণ করছেন চাষীরা। পাইকারদের হাত ঘুরে সেই মরিচ চলে যাচ্ছে খুচরা বাহারে। খুচরা বাজারে পৌছার পর যার দাম ছাড়াচ্ছে প্রতি কেজি ২০০শ’টাকা। একদিকে হতাশা অন্যদিকে আনন্দ। কৃষকরা একবাক্যেই জানালেন ক্ষেত নষ্ট হয়ে উৎপাদন কম হওয়ায় বেড়েছে দাম।

খুচরা ও পাইকারী বাজার ঘুরে দেখা গেছে বাজার গুলোতে মরিচের সরবরাহ রয়েছে বেশ। তবে প্রকার ভেদে দাম সেই একই রকম ১২০ থেকে ২২০ টাকা। এর মধ্যে ক্ষুদ্র ও চিকন আকৃতির ভারতীয় এলসি মরিচের দাম সবচেয়ে কম। মরিচের নাগাল ছাড়া দামের ব্যাপারে একই বক্তব্য পাইকার ও খুচরা ব্যবসায়ীদেরও।বর্ষার কারনে ক্ষেত নষ্ট, উৎপাদন কম, বাজারে সরবরাহ কম তাই দাম বাড়তি।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক সুব্রত কুমার সরকার চলমান সময়কে খরিপ-২ মৌসুম হিসাবে উলে­খ করে জানান, এ সময়টাতে মরিচ সহ শবজী ক্ষেত নষ্ট হয় বৃষ্টিপাতের কারনে। এবারের টানা বর্ষণ সহ বন্যার কারনে মরিচ ক্ষেত ব্যাপক ভাবে নষ্ট হয়েছে। এ কারনে উৎপাদনে প্রভাব পড়েছে। বেড়েছে দাম। তবে এতে করে কৃষকরা উপকৃত হচ্ছে বলে সন্তোষ প্রকাশ করেন জেলার প্রধান এ কৃষি কর্মকর্তা।

ক্ষেতে ফসল থাকা কৃষকরা বাড়তি দাম পেয়ে লাভবান হলেও যাদের ফসল নষ্ট হয়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন তাদের ক্ষতি পুশিয়ে দিতে কি উদ্যোগ নেয়া হয়েছে তা জানাতে পারেননি সংশ্লিষ্ট কেউ।

ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের দাবি তাদের পূনরায় চাষ খরচ দিয়ে সহায়তা করলে তারা আবার নতুন উদ্যমে মাঠে আবাদে নামতে পারতেন। এমনিতেই অনেক কৃষককে এনজিওর ঋণের ঘানি টানতে হয়। তার উপর একটি মৌসুমের ঘাটতি পুষিয়ে নিতে গিয়ে নিঃশ্ব হয়ে পড়েন তারা।

Print Friendly, PDF & Email

খবরটি শেয়ার করুন....



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অনুসন্ধান



বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন

করোনা ইনফো (কোভিড-১৯)

 

 

 

 

 

 

পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:০৫ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ
  • ৩:৩৫ অপরাহ্ণ
  • ৫:১৪ অপরাহ্ণ
  • ৬:৩১ অপরাহ্ণ
  • ৬:২০ পূর্বাহ্ণ

ফটো গ্যালারি



জনপ্রিয় পুরাতন হিন্দি গান

জনপ্রিয় বাউল গান




ইউটিউব চ্যানেল

সর্বশেষ সংবাদ জানতে



আমরা জনতার সাথে......“আজকের দিগন্ত ডট কম”

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত “আজকের দিগন্ত ডট কম”।  অনলাইন নিউজ পোর্টালটি  বাংলাদেশ তথ্য মন্ত্রনালয়ে জাতীয় নিবন্ধন প্রক্রিয়াধীন।

Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Shares